Flash News
News add
Image

দাড়িভিটে নিহত দুই প্রাক্তন ছাত্রের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকীতে বিজেপির স্মরনসভা

News add

পুলিশের গুলিতে মৃত দাড়িভিট স্কুলের দুই প্রাক্তন ছাত্র রাজেশ ও তাপসের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকীতে স্মরনসভা ও শহীদ বেদীর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করল উত্তর দিনাজপুর জেলা বিজেপি।

 

উত্তর দিনাজপুর জেলার ইসলামপুর থানার দাড়িভিট হাইস্কুল সংলগ্ন এলাকায় পুলিশের গুলিতে শহীদ ছাত্র রাজেশ ও তাপসের স্মরনসভায় যোগ দেন বিজেপির রাজ্য সাধারন সম্পাদক রবীন্দ্রনাথ বোস। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিজেপির জেলা সভাপতি বিশ্বজিৎ লাহিড়ী, বিজেপির তফশিলি মোর্চার রাজ্য সভাপতি সহ বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব ও অসংখ্য বিজেপি কর্মী সমর্থকরা।

 

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ২০ সেপ্টেম্বর ইসলামপুর ব্লকের দাড়িভিট হাইস্কুলে বাংলা বিষয়ে শিক্ষকের দাবিতে আন্দোলনে নামে স্কুলের ছাত্রছাত্রী সহ অভিভাবক অভিভাবিকারা। ছাত্রছাত্রীদের সেই আন্দোলনকে প্রতিহত করতে উদ্যোগী হয় জেলা ও রাজ্য প্রশাসন। যার কারনে ছাত্র-পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। পুলিশের গুলিতে দাড়িভিট হাইস্কুলের দুই প্রাক্তন ছাত্র রাজেশ সরকার ও তাপস বর্মনের মৃত্যু হয়। গুলিবিদ্ধ হয়ে এক ছাত্র গুরুতর জখমও হয়েছিল। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে তোলপাড় হয়ে ওঠে রাজ্য রাজনীতি। ঘটনার সিবিআই তদন্তের দাবিতে দীর্ঘদিন ধরে আন্দলোন চালাতে থাকে মৃত ছাত্রদের পরিবার ও বিজেপি। সেই ঘটনার আজ দ্বিতীয় বছর পূর্ণ হলেও দোষী পুলিশদের সনাক্ত করা বা শাস্তির ব্যাবস্থা আজও করে উঠতে স্খম হয়নি রাজ্যের তৃণমূল সরকার। রাজ্য সরকার ঘটনার সিআইডি তদন্তের নির্দেশ দিয়েই দায় সেরেছে। কিন্তু সত্যি কি সিআইডি তদন্ত করছে?? উঠছে প্রশ্ন।

 

এদিকে পুলিশের গুলিতে মৃত দাড়িভিট স্কুলের দুই প্রাক্তন ছাত্র রাজেশ ও তাপসের মৃত্যুর ঘটনা ও তাঁদের ভাষা শহীদ হিসেবে চিহ্নিত করে আজও দাড়িভিট গ্রামের মানুষ সমাধির মাধ্যমে তাঁদের স্মরন করে রেখেছেন। রবিবার তাঁদের শহীদ দিবসের দিনে উত্তর দিনাজপুর জেলা বিজেপির পক্ষ থেকে দাড়িভিট গ্রামে একটি স্মরন সভার আয়োজন করা হয়। এর পাশাপাশি তাঁদের আন্দোলনকে জিইয়ে রাখতে এবং তাঁদের শ্রদ্ধাঞ্জলি জানাতে শহীদবেদীর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়।

News add
লাইফ স্টাইল