Flash News
News add
News
Image

করোনার ভয়ে সবজি স্যানিটাইজ! অজান্তে ডেকে আনছেন বিপদ

News add

সবজিতে করোনা ভাইরাস না থাকলেও থাকে অনেক ধরনের কীটনাশক, জীবাণু। আর মহামারীর সময় এই সমস্ত বাইরের কীটনাশক, জীবাণু আমাদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমিয়ে দেয়। এর ফলে শরীরে দানা বাঁধতে পারে করোনা ভাইরাস। সেই ক্ষেত্রে আমাদের বাজার করে ফেরার পর বিভিন্ন শাক সবজি গরম জলে ধুয়ে রাখা উচিত। গরম জলে সেদ্ধ করার ফলে অনেক জীবাণু মরে যায়। এর পাশাপাশি চিকিৎসকরা বারবার বলেছেন সবজিতে কখনো স্যানিটাইজার বা কোনরকম কীটনাশক মারার স্প্রে করা উচিত নয়, কারণ এই সমস্ত স্প্রে করার ফলে সেই খাবার আমাদের পেটে গেলে একই ভাবে নানা রকম রোগ দেখা মিলতে পারে।

 

১. প্রথমে আমাদের যে জিনিসটা মনে রাখতে হবে তা হচ্ছে বাজার থেকে ফল ও শাক-সবজি কিনে আনার পর টেবিলে না রেখে সেটা একদম রান্না ঘরে রাখা উচিত। রান্না ঘরে ভালোমতো ঠাণ্ডা জলে ধুয়ে নিয়ে সেই দিনের রান্নার তালিকায় থাকা সবজিগুলো গরম জলে ভিজিয়ে রাখা খুব দরকার। তার কারণ গরম জলে ভিজিয়ে রাখলে সবজি জীবাণুমুক্ত হবে এবং সবজিতে রং আনার জন্য যে সমস্ত কীটনাশক ব্যবহার করা হয় তা দূর হয়।

 

২. যে সমস্ত সবজী খোসা ফেলে দেওয়া যায় তার দু’তিনটে কোয়া ফেলে দেওয়া দরকার। এর পাশাপাশি এই ধরনের সবজিগুলোকে অন্তত খানিকক্ষণের জন্য হলেও গরম জলে ভিজিয়ে রাখলে দূর হবে কীটনাশক।

 

৩. সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মিতে একাধিক ভাইরাসের মৃত্যু হয়। তাই বলে বাজার থেকে সবজি বাড়িতে এনে তা একভাবে রোদে রেখে দেওয়া বুদ্ধিমানের কাজ নয়। সবজি বাড়িতে আনা মাত্র তা ধুয়ে ফ্রিজে রেখে দেওয়া দরকার।

 

৪. সব ধরনের শাক আমাদের শরীরের পক্ষে খুব উপকার। ক্লান্তি ভাব কাটানোর জন্য বারবার চিকিৎসকরা শাক সবজি খেতে বলছেন। তবে মনে রাখবেন শাক-এর মধ্যে অনেক পোকা এবং জীবাণু লুকিয়ে থাকে, তাই যে কোন শাক কিনে আনার পর তা একটু সোডা এবং গরম জলে ভিজিয়ে রাখলে তার মধ্যে থাকা সমস্ত জীবাণুর মৃত্যু ঘটে। সংগৃহীত.........

News add
লাইফ স্টাইল