Flash News
News add
News
Image

আপনারা কি জানেন চকোলেট কিভাবে তৈরি হয়েছিল?

News add

সৌমিতা রায়ঃ  চকোলেটের ইতিহাস খুঁজতে গেলে আমাদেরকে প্রায় ছ-শো বছর পিছনে হাঁটতে হবে। জমাট টুকরো টুকরো চকোলেট তৈরি হওয়ার অনেক আগে থেকেই চকোলেট পানীয় হিসাবে জনপ্রিয় ছিল দক্ষিন আমেরিকায়। আজটেকরা এই পানীয় তৈরি করত কাকাও গাছের বীজ গুঁড়ো করে গরম জলে ফুটিয়ে, যদিও তা খাওয়া হত ঠাণ্ডা করে এবং গোলমরিচ দিয়ে। স্পেনীয় অভিযাত্রীরা আজটেকদের কাছ থেকে এই পানিয়ের কথা জানতে পারে, কিন্তু তারা গোলমরিচটা ঠিক পছন্দ করেনি। তাই সমপরিমাণ চিনি দিয়ে তা ফুটিয়ে খেত। 

স্পেনীয়রা এই নতুন পানীয়ের কথাটা প্রায় একশো বছর ধরে গোপনই রেখে দেয়। অবশেষে সপ্তদশ শতাব্দীর মাঝামাঝি একজন ফরাসি ভাল করে গুঁড়ো করা কাকাও বীজ থেকে জমাট চকোলেট বানানোর পদ্ধতি আবিস্কার করেন। কাকাও বা কোকো বীজ সেঁকে নিয়ে তার খোসাটা ছাড়িয়ে ফেললে ভেতরে একটা বিচি পাওয়া যায়। এইটাকে টুকরো টুকরো  করে ভাঙা হয়, যাকে বলে " নিব "। তারপর নিবগুলোকে ভারি পাথরের চাকিতে গুঁড়ো করা হয়। তা থেকে তেল বেরিয়ে একটা ঘন মিশ্রণ তৈরি হয়। যাকে বলে "চকোলেট লিকার"। সেটা ঠাণ্ডা হয়ে জমে গেলে বিটার ( তেঁতো ) চকোলেট তৈরি হয়। যা নানারকম মিষ্টি বা কেক বানানোর কাজে লাগে। 

জেনে রাখা ভালো, কারাব গাছের বীজের বাগামি চামড়ার মতো ছাল থেকে একরকম আঠা বেরোয়। এই আঠাকেও কারাব বলা হয়। এর স্বাদও চকোলেটের মতোই। সেঁকে এবং গুঁড়ো করে একেও চকোলেটের  মতোই জামানো হয়। 

News add
লাইফ স্টাইল