Flash News
News add
News
Image

ওয়ান ডে সুপার লিগে বেশ কিছু নিয়মে পরিবর্তন আনল আইসিসি

News add

২০২৩ ক্রিকেট বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে চালু হচ্ছে ওয়ার্ল্ড কাপ সুপার লিগ। সোমবারই নয়া প্রোজেক্টের কথা ঘোষণা করেছে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ামক সংস্থা আইসিসি৷ দুই প্রতিবেশী দেশ ইংল্যান্ড ও আয়ারল্যান্ডের মধ্যে ওয়ান ডে সিরিজ দিয়েই সূচনা হবে ওয়ান ডে সুপার লিগ৷ এই লিগের মাধ্যমেই হবে ভারতের মাটিতে অনুষ্ঠিত হতে চলা ২০২৩ বিশ্বকাপে যোগ্যতা অর্জন। সুপার লিগে অংশগ্রহণ করবে আইসিসি’র পূর্ণ সদস্যপদ প্রাপ্ত ১২টি দেশ এবং ২০১৫-১৭ আইসিসি ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট সুপার লিগ বিজয়ী আয়ারল্যান্ড।

 

তবে ওয়ান ডে সুপার লিগে বেশ কিছু নিয়মে পরিবর্তন এনেছে আইসিসি৷ এর মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য হল টেস্টের মতো প্রতিটি ইনিংসে দু’টি করে রিভিউ নেওয়ার সুযোগ৷ আইসিসি-র জেনারেল ম্যানেজার (ক্রিকেট অপারেশন) জিওফ অ্যালার্ডিস জানিয়েছেন, বিশ্বকাপ সুপার লিগে প্রতিটি দলকে প্রতি ইনিংসে দু’টি করে রিভিউ দেওয়া হবে।

 

এতদিন পর্যন্ত নিয়ম ছিল সীমিত ওভারের ক্রিকেটে ইনিংসে একটি করে রিভিউ পেত প্রতিটি দল৷ কিন্তু চলতি বছরের জুনে একটি থেকে রিভিউ বাড়ানোর ঘোষণা করে দেওয়া হয়েছিল৷ এখন থেকে ওয়ান ডে-র পাশাপাশি টি-২০ ফর্ম্যাটেও এই নিয়ম প্রযোজ্য। এই নিয়ম পরিবর্তনটি COVID-19 মহামারী দ্বারা আনা প্লেয়িং শর্তগুলির মধ্যে একটি অন্তর্বর্তী পরিবর্তন৷ প্রতি তিন মাস অন্তর নিয়মের পর্যালোচনা করা হতে পারে।

 

জিওফ অ্যালার্ডিস ক্রিকইনফো-কে জানিয়েছেন, ‘প্রতিটি ফর্ম্যাটে একটি অতিরিক্ত রিভিউ পেয়েছিল। মূলত পরিকল্পনাটি ছিল এটি অন্তর্বর্তীকালীন ব্যবস্থা৷ আমরা দেখব কীভাবে এটি খেলছে৷ এটি কী খেলায় অতিরিক্ত বিলম্ব সৃষ্টি করছে কিনা, সেদিকেও আমাদের নজর থাকবে৷ অন্তর্বতীকালীন সময়ে এ নিয়ে বিতর্ক দেখা যেতেই পারে৷’

 

তিনি আরও জানিয়েছেন, ওয়ান ডে সুপার লিগে তৃতীয় আম্পায়াররা সামনের পায়ের নো-বল চেক করবে৷ অ্যালার্ডিস বলেন, ‘এই নতুন নিয়ম আয়ারল্যান্ড এবং ইংল্যান্ডের মধ্যে আসন্ন ওয়ান ডে সিরিজে ব্যবহার করা হবে। সাদা বলের ক্রিকেটে ফ্রি-হিটের গুরুত্ব রয়েছে৷ সেই কারণে নো-বল ঠিকভাবে নির্ধারণ করা একটি গুরুত্বপূর্ণ বৈশিষ্ট্য হিসাবে বিবেচনা করা হয়। ক্রিকেট কমিটি সুপারিশের কথা মাথায় রেখে বিশ্বকাপ সুপার লিগের এই নিয়ম প্রয়োগ করা হচ্ছে৷’ সংগৃহীত......

News add
লাইফ স্টাইল